Breaking News :

করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা চল্লিশ লক্ষ

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে সর্বপ্রথম করোনা ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। ইতিমধ্যে চীন পুরোপুরি এই ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে আনলেও একে একে বিশ্বের ১৮৫ টির বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস।

চীনের উহান থেকে আমেরিকা। বিশ্বের এমন কোন দেশে নেই যেখানে করোনা ভাইরাস ছড়ায় নি। প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের এই তান্ডবে বিশ্বব্যাপী আক্রান্তের সংখ্যা আজ ৪০ লাখ ছাড়ালো এবং এই ভাইরাসটিতে এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ ৭৬ হাজার ২১৫ জনের, সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩ লাখ ৮৫ হাজার ১২৩ জন।

ভাইরাসটির আঘাত ছিল চীনে সে হিসেবে চীনে লক্ষ লক্ষ মানুষ আক্রান্ত এবং মৃত্যু হওয়ার সম্ভাবনা থাকলেও ভাইরাসটি বর্তমানে তান্ডব চালাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে এবং সমগ্র ইউরোপ জুড়ে। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ২১ হাজার, মৃত্যু হয়েছে ৭৮ হাজার ৬১৫ জনের।

দ্বিতীয় অবস্থানে আছে স্পেন। স্পেনে আক্রান্ত ২ লাখ ৬০ হাজার জন, মৃত্যু হয়েছে ২৬ হাজার ২৯৯ জনের।

তৃতীয়তে আছে ইতালি। করোনায় বিপর্যস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত ২ লাখ ১৭ হাজার, মারা গেছে ৩০ হাজার ২০১ জন।

অন্যদিকে চতুর্থ স্থানে আছে যুক্তরাজ্য। এখানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২ লাখ ছাড়িয়েছে, মৃত্যু হয়েছে ৩১ হাজার ২৪১ জনের।

বর্তমানে ইউরোপের পরাশক্তি হিসেবে পরিচিত রাশিয়া করোনার নতুন হটস্পটে পরিণত হয়েছে। দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮৭ হাজার ছাড়িয়েছে, মারা গেছে ১৭শ’ ২৩ জন। প্রথম দিকে রাশিয়াতে করোনার তেমন প্রাদুর্ভাব দেখা না গেলেও বর্তমানে দেশটিতে প্রতিনিয়ত লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। যা রাশিয়ান সরকারকে ভাবিয়ে তুলেছে।

ফ্রান্সে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৭৬ হাজার জন, মারা গেছে ২৬ হাজার।

ইউরোপের আরেক পরাশক্তি জার্মানিতে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে । কিন্তু সেদেশের সরকার জানিয়েছে তারা করোনা নিয়ন্ত্রণে এনেছে। এরইমধ্যে দেশটি লকডাউন শিথিল করেছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত ১ লাখ ৭০ হাজার জন, মারা গেছে ৭ হাজার ৫১০ জন।

দক্ষিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। এখানেও থেমে নেই করোনার ভয়াল থাবা। ব্রাজিলকে আরেক হটস্পট বলা যায় । দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৪৬ হাজার, মারা গেছে ১০ হাজারের বেশি মানুষ।

মধ্যপ্রাচ্যেও থেমে নেই করোনার থাবা। তুরস্ক, ইরানে আক্রান্তের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে এছাড়া সৌদিআরব, ইরাক, আরব আমিরাত সহ অন্যান্য মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বাংলা ক্যালেন্ডার

Alert! This website content is protected!