Breaking News :

আরোও একজন পুলিশ সদস্য করোনা যুদ্ধে শহীদ হলেন

বাংলাদেশে করোনা আসার পর থেকেই বাংলাদেশ পুলিশবাহিনী নিরন্তর কাজ করে যাচ্ছেন সাধারন মানুষের কল্যাণের জন্য। বিভিন্ন সমাজ কল্যাণমূলক কাজের সাথেও তারা সম্পৃক্ত হন। দুঃস্থ মানুষের ঘরে ঘরে উপহার সামগ্রী (ত্রাণ) পৌছে দেওয়া থেকে শুরু করে আইনশৃঙ্খলার উন্নতি সহ অন্যান্য সেবামূলক কাজ করে আসছেন তারা।

দীর্ঘ এই যাত্রায় প্রতিদিনই পুলিশের মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকেই। আর এই যুদ্ধে আজ পর্যন্ত অনেকেই মারা গেছেন। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দায়িত্ব পালনকালে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন আরও এক পুলিশ সদস্য। তিনি হলেন কনস্টেবল জালাল উদ্দিন খোকা (৪৭)। তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক পূর্ব বিভাগে কর্মরত ছিলেন।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি মিডিয়া মো. সোহেল রানা মিডিয়াকে জানান, তিনি দ্বায়িত্ব পালনকালে অসুস্থবোধ করেন এবং তার শরীরে করোনাভাইরাসের লক্ষ্যণ দেখা দেয়। এজন্য গত ২৬শে এপ্রিল কভিড-১৯ টেস্ট করানো হয় তার। টেস্ট এর ফলাফল আসে পজিটিভ। রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ লাইন হাসপাতালে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। কিন্তু সেখানে তার শাররিক অবস্থার অবনতি হতে থাকলে তাকে নিবিড় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ শনিবার (৯ মে) সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে তিনি মারা যান।

কনস্টেবল জালাল উদ্দিন খোকা (৪৭) উনার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার ভালুকা থানার উড়াহাট গ্রামে। তার পরিবারে আছেন স্ত্রী, দুই কন্যা ও এক পুত্র সন্তান।

পুলিশের ব্যবস্থাপনায় লাশ তার গ্রামের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সেখানে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। পরে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

জেনে রাখা ভালো, করোনার এই যুদ্ধে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ পুলিশের ৭ জন সদস্য শহীদ হলেন।

বাংলা ক্যালেন্ডার