Breaking News :

করোনার থাবা এখন ইসকন মন্দিরে

পুরো দেশ লকডাউনের মধ্যেই রাজধানীর স্বামীবাগে ইসকন মন্দিরে করোনাভাইরাসের হানা। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন উক্ত মন্দিরের পুরোহিত, সেবায়েতসহ ৩৬ জন।

গত শুক্রবার রাতে বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর গতকাল শনিবার সকাল থেকে মন্দিরটি লকডাউন করা হয়। পুলিশের ওয়ারী বিভাগের উপকমিশনার শাহ্ ইফতেখারুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মন্দিরের কমিটির সাথে যোগাযোগ করা হলে (নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক) একজন জানান, মন্দিরের কার্যক্রম বন্ধ আছে। কিন্তু ভিতরে অনেকদিন থেকেই ৩০-৪০ জন মানুষ একসাথে অবস্থান করছে এবং তারা নিজেদেরকে লকডাউনের আওতায়ই রেখেছিল।

তবে, প্রশ্ন উঠেছে যেখানে পুরো দেশের মসজিদগুলো সরকারী আদেশে বন্ধ রয়েছে এবং মসজিদগুলোতে সীমিতভাবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনুমতি সাপেক্ষে প্রতি ওয়াক্তে ৫জন, জুম্মায় ১০জন এবং তারাবিহ নামাজে ১২জন নামাজ আদায় করা হচ্ছে। সেখানে কিভাবে মন্দিরগুলো এখন পর্যন্ত উন্মুক্ত অবস্থায় আছে?

গেন্ডারিয়া থানার ওসি মো. সাজু মিয়ার সাথে এব্যাপরে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, ইসকন কর্তৃপক্ষ বহু আগেই মন্দিরে বাইরে থেকে ঢুকা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। যারা ছিলেন তারাও সব সময় ভিতরে অবস্থান করতেন।

পুলিশের একজন সহকারী উপপরিদর্শক মন্দিরের নিরাপত্তার তত্ত্বাবধানে ছিলেন। নমুনা পরীক্ষা তারও করোনা পজেটিভ এসেছে। পুলিশ মন্দিরটি লকডাউন করে দিয়েছেন এবং খতিয়ে দেখছেন বন্ধ অবস্থায় বন্দিরে বাইরে থেকে মানুষ আসা যাওয়া করেচে কি না।

বাংলা ক্যালেন্ডার

Alert! This website content is protected!