Breaking News :

সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দীন মারা গেছেন করোনায়

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারালেন সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দীন। বুধবার ভোরে রাজধানীর বাংলাদেশ-কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ এ খবর নিশ্চিত করেছে। এর আগে সোমবার সকাল থেকে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়।

গত রবিবার (৫ এপ্রিল) নমুনা পরীক্ষার পর আইইডিসিআর থেকে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে ওই চিকিৎসকের। সিলেটে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী তিনি। মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) রাত ১১টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সযোগে তাকে সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় স্থানান্তর করে তার পরিবার।

এদিকে ফেইসবুকে তার কিছু মেসেজ ভাইরাল হয়। তিনি তার মেসেজগুলো তারই জুনিয়রদেরকে লিখেছিলেন। গত ৫ এপ্রিল সিলেটে প্রথম যে ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত সনাক্ত হয়েছিলেন তিনি ছিলেন ডা.মঈন উদ্দীন।৭ এপ্রিল অবস্থার অবনতি হলে তাকে শামসুদ্দিন করোনা সেন্টারে নেওয়া হলেও সেখানে ছিলনা পর্যাপ্ত আইসিইউ সুবিধা। তিনি অসহায়ের মতো মেসেজ দিয়েছিলেন আইসিইউ এম্বুলেন্সের জন্য। প্রশাসন তার জন্য এয়ার এম্বুলেন্সের ব্যবস্থাও করতে পারেনি।

মেধাবী এই মানুষটি ছাত্রজীবনে বোর্ড স্ট্যান্ডসহ সুযোগ পেয়েছিলেন বুয়েট,ঢাকা ইউনিভার্সিটি, ঢাকা মেডিকেল কলেজে পড়ার।মানবতার সৈনিক হিসেবে বুকে ধারণ করে নিয়েছিলেন চিকিৎসা পেশার ছাত্র হিসেবে নিজেকে গড়ে তোলার অধ্যাবসায়। কৃতিত্বের সাথে এম বি বি এস,এফ সি পি এস,এম ডি সম্পন্ন করে হয়েছিলেন মেডিসিনের একজন মেধাবী শিক্ষক এবং চিকিৎসক। ছিলেন বিসিএস ক্যাডার।কর্মজীবনে দক্ষিণ সুরমা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন বহুদিন।পরবর্তীতে যোগ দিয়েছিলেন সিলেট মেডিকেল কলেজে।ছাত্রবৎসল এই চিকিৎসক তার ব্যক্তিজীবনে ছিলেন দুই সন্তানের জনক।

বাংলা ক্যালেন্ডার