Breaking News :

নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ায় পুরস্কৃত ৫ শিশু

নামাজ পড়া প্রত্যেক মুসলমানের উপর ফরজ করা হয়েছে। আর নামাজের অভ্যাস যদি বাল্যকাল থেকে করা যায় তাহলে বড় হতে হতে এই অভ্যাসটি নিয়মে পরিণত হয়ে যায়।

প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার আগেই শিশুদের আল্লাহর ঘর মসজিদের সঙ্গে পরিচয় করানো ও নামাজের জন্য অভ্যস্ত বানানো একটি প্রশংসনীয় কাজ। কেননা বাল্যকালে যে জিনিসে অভ্যাস হয়, পরে তা করা সহজ হয়, নতুবা তা কঠিন হয়ে দাঁড়ায়।

হাদিসে এসেছে, ‘তোমরা তোমাদের বাচ্চাদের সাত বছর বয়স থেকেই নামাজের নির্দেশ দাও। আর যখন ১০ বছর বয়সে উপনীত হবে, তখন তাদের নামাজে অবহেলায় শাস্তি প্রদান করো। (আবু দাউদ, হাদিস : ৪৯৫)

নামাজের দিকে ধাবিত করার লক্ষ্যে সিলেট জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার পূর্ব দশঘর গ্রামের একদল যুবক শিশুদের নামাজের প্রতি আকৃষ্ট করার জন্য স্বল্প পরিসরে নেয়া হয়েছে অভিনব ব্যতিক্রম  উদ্যোগ। তারা ঘোষণা দেন, যেসব শিশু ৭ দিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সাথে নিয়মিত আদায় করবে তাদেরকে পুরস্কৃত করা হবে। এই ঘোষণার ফলে ৫জন শিশু নামাজ পড়া শুরু করে এর প্রেক্ষিতে বুধবার ৫ জন শিশুকে ৭ দিন ৫ ওয়াক্ত নামাজ জামাতের সাথে নিয়মিত আদায় করায় পুরস্কার স্বরূপ শীতের পোষাক (সোয়েটার) প্রদান করা হয়।

উদ্যোক্তাদের  একজন বলেন, আমরা আশাবাদী যে এ উদ্যোগ শিশুদের নামাজের প্রতি উৎসাহী করতে সাহায্য করবে এবং তাদেরকে ভবিষ্যতে খাঁটি আল্লাহর বান্দা হিসাবে তৈরি করবে।উদ্যোক্তাদের পক্ষ্য থেকে আরো জানানো হয়, এই প্রক্রিয়া চালমান থাকবে আর আমাদের এ উদ্যোগ যেন কার্যকরী হয় তাই আমরাও দোয়া প্রার্থী এবং আমাদেরকে সবাই সহযোগীতা করবে বলে আমরা আশাবাদী।

বাংলা ক্যালেন্ডার