Breaking News :

ভারতজুড়ে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট

আজ বুধবার সকাল ৬টা থেকে পশ্চিমবঙ্গেও শুরু হয়েছে এই ধর্মঘট। সিএএ এবং এনআরসি বাতিলের দাবিতে ভারতের ১০টি কেন্দ্রীয় শ্রমিক সংগঠনের ডাকে আজ বুধবার ভারতজুড়ে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘট শুরু হয়েছে। এই ধর্মঘটে সমর্থন দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গের ১৭টি বাম দলসহ কংগ্রেস, শিবসেনা, ৬০টি বামপন্থী ছাত্রসংগঠন, ১৭৫টি শ্রমিক সংগঠন। সিএএ ও বাতিলসহ ১৪ দফা দাবিতে এই ধর্মঘট চলছে।

ধর্মঘটের কারণে রাস্তায় বেসরকারি যানবাহন চলাচল কম দেখা গেছে। তবে সরকারি বাসের সংখ্যা বেশি দেখা গেছে। সকালে বিভিন্ন জায়গায় ট্রেন চলাচল ব্যাহত করা হয়।

তবে কংগ্রেস এবং বাম দল তৃণমূলকে এই ধর্মঘটে শামিল হওয়ার আবেদন জানালেও তাতে তৃণমূলের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সায় দেননি । তিনি বলেন, ধর্মঘটের ইস্যুকে সমর্থন করলেও তৃণমূল ধর্মঘট সমর্থন করে না। এই ধর্মঘটের বিরুদ্ধে গতকাল মঙ্গলবার কলকাতার পথে নেমেছে তৃণমূল। মন্ত্রী শোভন দেব চট্টোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে  মিছিলকারীরা সিএএ এবং এনআরসি বাতিলের দাবি তুললেও বিরোধিতা করে ধর্মঘটের।

এর আগে সোমবার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সচিবালয় নবান্ন থেকে এক নির্দেশে জানানো হয়, এই ধর্মঘটে যেন রাজ্যের কোনো সরকারি কর্মী যোগ না দেন। যোগ দিলে তাঁদের এক দিনের বেতন ও ভাতা কাটা যাবে। একইভাবে ধর্মঘটের পরদিনও কেউ অনুপস্থিত থাকতে পারবেন না।

ধর্মঘট নিয়ে সিপিএম নেতা মুহম্মদ সেলিম বলেন, মুখে এনআরসি, সিএএর বিরুদ্ধে বললেও তারা যে বিজেপির সঙ্গে আছে, তা প্রমাণ হয়ে গেল। এবার প্রমাণ হয়ে গেল তৃণমূল কাদের স্বার্থ সফল করছে।  তাদের তো এই সিএএ ও এনআরসি ইস্যুতে এই ধর্মঘটে শামিল হওয়া উচিত ছিল।

বাংলা ক্যালেন্ডার