Breaking News :

ইরাক থেকে ন্যাটো সেনা সদস্যদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে!

মার্কিন বিমান হামলায় ইরাকে ইরানি সামরিক কর্মকর্তা কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার পর ইরানের প্রতিশোধমূলক ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণার প্রেক্ষাপটে আসন্ন সংকটের কথা চিন্তা করে ন্যাটো জোট তাদের কিছু সংখ্যক সেনা সদস্য ইরাক থেকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়ার কথা জানিয়েছিল।সেনাবাহিনীর সদস্যদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হচ্ছে জানিয়ে এক ন্যাটো কর্মকর্তা গতকাল বিবৃতি দিয়েছিলেন।

উপসাগরীয় অঞ্চলে ‘ন্যাটোর উপস্থিতি বজায় থাকা’কে জোর দিয়ে ন্যাটো কর্মকর্তা বলেছেন, মিশনের সেনা সদস্যদের ইরাকের অন্যত্র নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
ইরাকে ২০১৮ সাল থেকে শুরু হওয়া ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ’ ন্যাটো ‘পরিস্থিতি অনুকূলে এলে’ আবারও প্রশিক্ষণ মিশন চালু করবে বলে জানিয়েছেন ন্যাটো কর্মকর্তা।

ইরান জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার প্রতিশোধ নেয়ার অংশ হিসেবে ইরাকের দুটি মার্কিন সেনা ঘাঁটিতে আজ ভোরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলার পর ইরান ও তার মিত্র ইরাকি মিলিশিয়াদের হাতে ইরাকে অবস্থানরত অন্যান্য বিদেশি সেনা আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনায় ন্যাটো জোট উদ্বিগ্ন বলে জানানো হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে ন্যাটো সেনা সদস্যদের ইরাক থেকে সাময়িকভাবে সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।

বাংলা ক্যালেন্ডার