Breaking News :

বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯ এর উদ্বোধন

অনুষ্ঠানের অন্যতম আকর্ষণ বলিউড সুপারস্টার সালমান খান বঙ্গবন্ধু বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রশংসায় ভাসালেন  ।  মঞ্চে পারফর্ম করতে এসে শেখ হাসিনার গুণে মুগ্ধ হয়ে এসব কথা বলেন বলিউডের সুলতান।

গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাতটার দিকে  বিপিএল এর বিশেষ এই আসর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এর আগে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে যান সালমান খান ও ক্যাটরিনা কাইফ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘সিরাতে হাসিনা’ বলে সম্বোধন করে তাকে সব দিক থেকেই সুন্দর বলে মন্তব্য করেন সালমান খান। এসময় তিনি আরও বলেন, ‘শুধু নামই হাসিনা নয়, মনের দিক থেকে, আকৃতিতে বাস্তবে আপনি সুন্দর। শেখ হাসিনাজি আমরা সত্যিই আপনাকে ভালবাসি।’

সালমান খান শেখা হাসিনার হাসিতে সবচেয়ে বেশি মুগ্ধ হয়েছেন। এটা প্রকাশ করতেও ভুলেননি বলিউডের এই সুলতান। ‘উনার হাসি অসাধারণ! এবং তার চোখ! বলার কোনো ভাষা নেই। আমরা আপনাকে ভালবাসিঃ সালমান খান’।

নাচ-আর গানে বলিউডের দুই তারকা মোহিত করবেন এমনটাই ছিল প্রত্যাশা। তবে নাচ-গান তো করছেন, দুই তারকার ভাঙা বাংলায় বলা কথাতেও মজেছেন বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের শ্রোতারা। সালাম দিয়ে কথা শুরু করেন সালমান। বাংলায় কথা বলার চেষ্টা করেন। তিনি ‘কেমন আছেন, তোমাকে ভালোবাসি’ এসব কথা বলে মাতিয়ে রাখেন দর্শকদের।

ক্যাটরিনা কাইফ ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ বলেন প্রথমেই। এর পরে শেখ হাসিনার প্রশংসা করেন। শেষে দুজনে একসঙ্গে ‘জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু’ বলে কথা বলা শেষ করেন। এরপরে দুজনের যৌথ পারফর্মেন্সের মাধ্যমে শেষ হয় অনু্ষ্ঠান।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী উদ্ধোধনী ভাষণে সকলকে  আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান এবং  টুর্নামেন্টের  স্বার্থকতা  এবং  সফলতা কামনা করে বঙ্গবন্ধু বিপিএল-২০১৯ এর উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরেই রকমারি আতশবাজির ঝলকানিতে মিরপুরের আকাশ ছেঁয়ে যায়। তারপর একে একে গান পরিবেশন করেন মমতাজ, জেমস, সোনু নিগম, কৈলাস খের প্রমুখ। গানের শেষে শুরু হয় সালমান-ক্যাটরিনার পরিবেশনা। তাদের পরিবেশনার মধ্য দিয়েই শেষ হয় জমকালো এই অনুষ্ঠান।

বিপিএলে এবার ৭টি দল অংশগ্রহণ করবে। ১১ ডিসেম্বর ২০১৯ থেকে শুরু হয়ে আসর চলবে ১৭ জানুয়ারি ২০২০ পর্যন্ত। ঢাকা ছাড়াও সিলেট ও চট্রগ্রামে প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটের ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে।

বাংলা ক্যালেন্ডার