Breaking News :

বিদেশে নারী শ্রমিক না পাঠানোর আহ্বান

একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশন শুরু হওয়ার সাথে সাথেই সৌদি ও মালয়েশিযা সহ বিভিন্ন দেশে নারী শ্রমিক বন্ধের জন্য জোড় দাবী জানায় জাতীয় পার্টি ।নারী শ্রমিকদের উপর শারীরিক নির্যাতন এবং চাকরীর কথা বলে যৌন হয়রানি প্রসঙ্গ তুলে ধরে এ দাবি জানান তারা।

গত মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিকালে একাদশ জাতীয় সংসদের পঞ্চম অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করেন বিরোধীদলীয় সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির কাজী ফিরোজ রশীদ, মুজিবুল হক চুন্নু ও সুলতান মনসুর আহমেদ। তারা প্রত্যেকই নারী শ্রমিক পাঠানো বন্ধের দাবি করেন।

সংসদে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, বিষয়টি নিয়ে আপনারা যতটা চিন্তিত, আমরা এর চেয়ে বেশি চিন্তিত। আমরা সৌদি সরকারের সাথে এ নিয়ে আলোচনার চেষ্ঠা চালাচ্ছি। আশা করি অতি শীঘ্রই প্রতিনিধি দল পাঠানো হবে।

অন্যদিকে সুলতান মনসুর আহমেদ প্রশ্ন রেখে বলেন, দেশের মান-মর্যাদা ঐতিহ্য রক্ষার স্বার্থে মহিলা শ্রমিক না পাঠিয়ে পুরুষ শ্রমিককে পাঠান, আয় দ্বিগুণ হবে। তাহলে ভালো হবে, দেশের মানও বাঁচবে, আমাদের মান-ইজ্জতও বাঁচবে। পারিবারিক পরিবেশ সুন্দর থাকবে। দেশের মর্যাদা অক্ষুণ্ণ থাকবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে। না হলে আমরা দাসত্বের বাংলাদেশে পরিণত হব।

এর জবাবে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলেন, সবকিছু যেভাবে চিন্তা করা হয় সেভাবেই হয়। সৌদি আরব, মালয়েশিয়া- যেখানেই বলেন, শ্রমবাজার অনুযায়ী ওনারা যেভাবে চায় ওই হিসাবেই তো পাঠাতে হবে। আর না হলে পাঠানোর দরকার নাই। যখন বলা হয় মানুষ পাঠাও, মানুষ চাইলে তো মানুষ পাঠাব। না চাইলে ওখানে ঠেলে তো মানুষ পাঠাতে পারব না। আমরা চেষ্টা করব নারী শ্রমিকরা যেন সম্মানজনভাবে ওখানে চাকরি করতে পারেন। আর যদি একেবারেই না করতে পারে তাহলে দেখব, চিন্তা করব না পাঠাতে।

তবে, মন্ত্রীর জবাবে তারা কেউই খুশি নন বলে জানান।  মন্ত্রীকে আরোও দায়িত্বশীল হয়ে এই বিষয়টি নিয়ে স্টাডি করা প্রয়োজন বলে তারা সকলেই জানান।

বাংলা ক্যালেন্ডার