Breaking News :

সিরাজউদ্দৌলাকে মারধর করেছেন অন্য আসামীরা

আলোচিত ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা। দীর্ঘ অপেক্ষার পর ১৬জনকে ফাঁসির রায় দেয় আদালত। বাদী পক্ষের হয়ে মামলা লড়েন ফেইসবুক লাইভ খ্যাত ব্যারিস্টার সুমন।

এদিকে রাফি হত্যা মামলার রায় শোনার পর এ মামলার প্রধান আসামি অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলাকে অন্য আসামিরা মারধর করেন আদালত প্রাঙ্গনে। বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১টার ফাঁসির আদেশের পর অধ্যক্ষ সিরাজউদ্দৌলাসহ ১৬ আসামিকে কারাগারে নেয়ার জন্য প্রিজনভ্যানে তোলার সময় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, প্রিজনভ্যানে তোলার পর অন্যান্য আসামি সিরাজকে হঠাৎ করেই পেটাতে থাকেন। সে সময় তাকে বুকে-মুখে চড়-থাপ্পড় মারা শুরু করেন তারা। অধ্যক্ষ সিরাজকে মারতে মারতে এ সময় আসামিদের কেউ কেউ বলতে থাকেন, ‘তোর কারণে আমাদের ফাঁসি হয়েছে।’

নুসরাত হত্যা মামলায় ১৬ আসামিকে ফাঁসির আদেশের পর কারাগারে নেয়ার সময় তাদের কেউ কেউ কাঁদছিলেন। তাদের মধ্যে আসামি মো. জোবায়ের, জাবেদ হোসেন, মো. শামীম, প্রভাষক আফছার উদ্দিন, হাফেজ আবদুল কাদের কান্নায় চিৎকার করতে থাকেন এবং তারা বলতে থাকেন, আত্মহত্যাকে হত্যা বলা হয়েছে।

এসময় পুলিশ গিয়ে আসামিদের শান্ত করেন।

বাংলা ক্যালেন্ডার