Breaking News :

গাছ পরিবেশ নষ্ট করে তাই সমস্ত গাছ কেটে ফেলেছেন

এই সংবাদটি একটু অন্যরকম। এতো দিন আমরা শুনেছি গাছের সাথে প্রেমের কথা। এখন জানবো গাছের সাথে শত্রুতার কথা। হ্যাঁ ঠিকই দেখছেন লিখাটি। তবে, ঘটনাটির প্রকৃত সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। ফেইসবুকের একটি গ্রুপ থেকে ভিডিও এবং লিখাটি আংশিক নেওয়া হয়েছে।

নাম উনার সুমাইয়া হাবিব (ফেইসবুক থেকে নেওয়া হয়েছে নামটি) শখ করে ছাদে অনেকগুলো গাছ লাগিয়েছিলেন। উনারা যে বাড়িতে থাকেন এটি একটি অ্যাপার্টমান্ট। এই বিল্ডিং এ উনাদের ২টি ফ্ল্যাট আছে। ফ্ল্যাট ২টি উনারা ক্রয় করেছিলেন। যে মহিলাটি উনাদের গাছগুলো কেটে ফেলেন উনিও একই বিল্ডিংএর বাসিন্দা।

এবার আসি মুল ঘটনায়। ঘটনাটি শুনুন সুমাইয়া হাবিব এর মুখে থেকেই-

ঠিক মাগরিব নামাজের ওয়াক্ত কিছুক্ষনের মধ্যেই আযান হবে। এমন একটি মুহুত্বে দা নিয়ে তাদেরই বাসার আরেকজন মহিলা ছাদে এসে হাজির এবং সাাথে তার ছেলের সাথে ১০/১২ জন সন্ত্রাসী যুবক। হঠাৎ মহিলাটি গাছগুলো কাটতে শুরু করেন। সুমাইয়া বিভিন্ন ভাবে বাাঁধা দেওয়ার চেষ্ঠা করলে তার ছেলে ও সাঙ্গ-পাঙ্গরা হামলার হুমকি দেয় এবং সাথে মহিলাটিও দা নিয়ে তেরে আসে কুপ দেওয়ার জন্য। মহিলার দাবি গাছগুলো পরিবেশ নষ্ট করে দিচ্ছে। তাই গাছগুলো কেটে ফেলতেই হবে।

সুমাইয়া হাবিব বলেন, আমার মা গাছ অনেক পছন্দ করে, তাই ছাদের এক কোণায় আমরা কিছু গাছ লাগিয়েছি। এই বিল্ডিং এ আমরা ২ টা ফ্ল্যাট কিনেছি। সবাই যার যার ক্র‍য়কৃত ফ্লাটে থাকে। ছাদে সবারই অধিকার আছে। আমরা আমাদের অধিকার থেকে কিছু গাছ লাগিয়েছি ছাদের একটা কোণায়। কিন্তু তারা অকারণে অন্যায়ভাবে আমাদের জীবন্ত এবং ফল ধরন্ত গাছগুলি কেটে ফেললো। আবার তার ছেলে কিছু ১০/১২ জন মাস্তান নিয়ে আসছে আমাদের উপর হামলা করার জন্য। আমাদের একটাই অপরাধ আমরা গাছ ভালবাসি। আমরা তো অন্যের জায়গায় গাছ লাগাই নাই। আমরা আমাদের অধিকার থেকে গাছ লাগিয়েছি। আমার মা এই গাছগুলিরে নিজের সন্তানের মত যত্ন করে। আমরা গাছগুলোকে নিজের সন্তানের মত ভালবাসতাম।

গাছগুলো কাটার সময় তিনি তার মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সমস্ত ঘটনা রেকর্ড করে রাখেন। এব্যাপারে এখনও কোন মামলা হয়নি।

সংবাদটির আপডেট পেতে : গাছ প্রেমি সেই সুমাইয়া হাবিবকে গাছ উপহার

বাংলা ক্যালেন্ডার