Breaking News :

যেকোন মূহুত্বে গ্রেফতার হতে পারেন যুবলীগের বহিস্কৃত চেয়ারম্যান ওমর ফারুক

ওমর ফারুকের ব্যক্তিগত ব্যাংক হিসাবের লেনদেন স্থগিত করার পাশাপাশি তার দুই ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাবের লেনদেনও স্থগিত করা হয়েছে। পাশাপাশি স্থগিত করা হয়েছে তার স্ত্রী ও তিন সন্তানের ব্যাংক হিসাবের লেনদেনও। এদিকে ওমর  ফারুকের সাথে কথা হলে তিনি বলেন “পালাবার কোনো কারণ তো নেই। আমি পালিয়ে যাবার লোক না। রাজনীতি করি। রাজনীতি করতে গেলে ভুলভ্রান্তি থাকতেই পারে। আমি কোনো অপরাধ করিনি যে আমাকে পালিয়ে যেতে হবে।” প্রসঙ্গ ছিল আপনি কি বিদেশ চলে যাবেন কি এর উত্তরের তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, গ্রেপ্তার হলে আদালতেই নিজেকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারবেন বলে মনে করেন ওমর ফারুক।

অন্যদিকে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার সূত্রে  নিশ্চিত হওয়া গেছে, যুবলীগের বহিস্কৃত চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরিকে গ্রেপ্তার করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ওমর ফারুক চৌধুরির বহিষ্কারের জন্য আইন প্রযোগকারী সংস্থা অপেক্ষা করছিলো। তার বিরুদ্ধে ক্যাসিনো বাণ্যিজ্য এবং নানা রকম অনৈতিক কর্মকান্ডে মদদ দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

আইন প্রযোগকারী সংস্থা সূত্রে জানা গেছে যে, তিনি যুবলীগের চেয়ারম্যান তাই তার জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছিল। যুবলীগের চেয়ারম্যান থেকে তার বহিষ্কার হওয়ার খবর জানার পরে আইন প্রযোগকারী সংস্থা তাকে গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। বর্তমানে ওমর ফারুক চৌধুরি ধানমন্ডির বাস ভবনে অবস্থান করছেন বলে আইন প্রযোগকারী সংস্থা নিশ্চিত করেছে।

উল্লেখ্য, রিমান্ডে ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট, খালেদ এবং জি কে শামীম এর জবানবন্দিতে তার পৃষ্ঠপোষকতার এবং মদদ দেওয়ার বিষয়টি উঠে এসেছে বলে আইন প্রয়োগকারী সংস্থা নিশ্চিত করেছে।

বাংলা ক্যালেন্ডার