Breaking News :

লুকাকুর ৫১ তম গোল মায়ের ৫১তম জন্মদিনে

এ যেন মিরাকেল এক ব্যাপার। ৫১ তম জন্ম দিন, ৫১ তম গোল।

প্রথম ফুটবলার হিসেবে দেশের জার্সিতে করলেন ৫০ আন্তর্জাতিক গোল। মজার ব্যাপার, ৫১তম গোলটা যেদিন করলেন সেদিন ছিল তার মায়ের ৫১তম জন্মবার্ষিকী। দরিদ্রতায় পিষ্ট তার করা ৫১ তম গোলটা নিশ্চয়ই বিশেষ কিছু হয়ে থাকবে লুকাকুর জীবনে। সে জন্যই তো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে এই গোল নিয়ে নিজের উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন বেলজিয়ান এই ফুটবলার।

রোমেলো লুকাকু দরিদ্রতাকে জয় করে সেটা পেরেছেন। নিজের পরিবারের দরিদ্রতা ঘুচিয়েছেন। বেলজিয়ামকে তুলেছেন বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে। খেলছেন ইউরোপের সব নামি-দামি ক্লাবে। তার এতসব অর্জনের ভিড়ে দারুণভাবে রচিত করলেন এক যোগসূত্র! সেই মায়ের কান্না চিরতরে মুছবে বলে ফুটবল মাঠে নামা ছেলেটা সেদিন গড়লেন এক ইতিহাস।

উল্লেখ্য, দরিদ্রতার কষাঘাতে পিষ্ঠ শৈশব। চারদিকে কেবল ক্ষুধার যন্ত্রণা। বেঁচে থাকাই তো দায়। একদিন স্কুল থেকে ফিরে দেখলেন কাঁদছেন মা। সন্তানদের মুখে ঠিকমতো খাবার তুলে দিতে না পারা মায়ের সে কষ্ট দেখে তিনি বলেছিলেন, ‘আমি ফুটবল খেলেই সব পাল্টে দেব। তোমাকে আর কষ্ট পেতে দেব না মা।’ শৈশবে অভাবে পানি মেশানো দুধ আর বাড়ির পাশের বেকারি থেকে ধার করে নিয়ে আসা পাউরুটি খেয়ে জীবন চলত তার! অর্থকষ্ট এতো বেশি ছিল যে ঘরে বহুদিন ছিলনা বিদ্যুৎও।

সবকিছুকে জয় করে তিনি এখন এক বিখ্যাত ফুটবল খেলোয়ার। দরিদ্রতা তাকে থামাতে পারেনি। থামাতে পারেনি বেলজিয়াম ফুটবল টিম। তার টুইটার স্টেটাস তাই বলে।

purebangla.com

 

বাংলা ক্যালেন্ডার